রবিবার ২৬ জুন ২০২২ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

৩ জেলায় আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪ জন নিহত

Accপবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন আজ মঙ্গলবার সকালে দেশের ৩টি জেলায় আলাদা আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ১৪জন নিহত হয়েছে। এরমধ্যে নোয়াখালীতে ৭জন, নারায়ণগঞ্জে ৪ জন এবং ভোলায় ৩ জন মারা গেছে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে জানা যায়, ঘরমুখী যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেট কার খাদে পড়ে ৩ জেলায় ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আমাদের নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, জেলার সোনাইমুরি উপজেলায় যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে অন্তত ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো কমপক্ষে ২০ যাত্রী। সোনাইমুরি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুস সামাদ এ দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে ওসি জানান, ঈদে ঘরমুখী যাত্রী নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে বলাকা এক্সপ্রেসের একটি বাস লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে যাচ্ছিল। পথিমথ্যে সোনামুরি উপজেলার ভোর পৌনে ৪টার দিকে জয়াগ বাজার দিয়ে যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খালে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরও ২০ যাত্রী। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে আজ ঈদের দিন ভোর সাড়ে ৬টার দিকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিঙ্ক রোডের সিদ্ধিরগঞ্জের জালপুরি এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২ জন। নিহতরা হলেন, সুমন, পিন্টু, সালাম ও আবদুল্লাহ। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলাউদ্দিন জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড থেকে ৬ জন যাত্রী একটি প্রাইভেট কার নারায়ণগঞ্জ শহরের দিকে যাচ্ছিল। এসময় ওই এলাকার  জালপুরি এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তা রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত ও দুই জন আহত হন। আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
পক্ষান্তরে ভোলার চরফ্যাশনে একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১০ জন। আজ মঙ্গলবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে ভোলা-চরফ্যাশন আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে থানার ওসি আবুল বাশার জানিয়েছেন। তিনি জানান, চট্টগ্রাম থেকে ভোলা ট্রান্সপোর্ট নামে একটি যাত্রীবাহী বাস ভোলায় যাচ্ছিল। পথে চরফ্যাশন উপজেলার কর্তারহাট এলাকায় বাসের একটি চাকা পাম্পার হয়ে যায়। এতে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলে দুই ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও এক যাত্রী মারা যান। আহত হন আরও ১০ জন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email