রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৫ বছর পর আবারও খানসামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সিজারিয়ান অপারেশন চালু

এস.এম.রকি,খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ জরুরি প্রসূতি সেবার আওতায় ৫বছর পর আবারও দিনাজপুর জেলার প্রথম উপজেলা হিসেবে খানসামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চালু হল সিজারিয়ান অপারেশন।

রবিবার (৭ নভেম্বর) সকালে ভার্চুয়ালী এই বিভাগের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবুল হাসান মাহমুদ আলী, এমপি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা.মিজানুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মোস্তফা আহমেদ শাহ ও সাধারণ সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী লায়ন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা.শামসুদ্দোহা মুকুল, জুনিয়র কনসান্টেন্ট (এনেস্থেসিয়া) ডা.রেজোয়ানুল কবির, মেডিকেল অফিসার ডা.শতাব্দী সাহা, ডা.নুর ফারিহা আইরিন, ইউনানী ডা.মোস্তাসিম তাহমিদ, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মাসুদ রানা, ওটি ইনচার্জ মৌসুমি আক্তার ও স্টাফগণ।

পরে সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, এমপি এবং রোগী কল্যাণ সমিতি হাসপাতাল সমাজসেবা কার্যক্রমের পক্ষ থেকে দুই নবজাতককে শুভেচ্ছা উপহার প্রদান করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর সিভিল সার্জন আব্দুল কুদ্দুস।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালে পর্যাপ্ত সরঞ্জামাদি ও সুযোগ-সুবিধা থাকা স্বত্ত্বেও এনেস্থিসিয়া ডাক্তার ও জনবল সংকটের কারণে ৫ বছর ধরে সিজারিয়ান অপারেশন বন্ধ ছিল। নতুন এনেস্থিসিয়া চিকিৎসক পদায়িত হওয়ায় এখন থেকে এ হাসপাতালে জরুরী প্রসূতি সেবার আওতায় এই কার্যক্রম চালু হল।

প্রথম দিনে ডিএসফ কার্ডধারী পাকেরহাট গ্রামের শাপলা আক্তার ও খামার বিষ্ণুগঞ্জ গ্রামের হাবিবা আক্তারের সিজার করা হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা.শামসুদ্দোহা মুকুল বলেন, পুনরায় এটি চালুর ফলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আরো সমৃদ্ধ হল। সিজারের মাধ্যমে জন্ম নেয়া দুই প্রসূতি মা ও দুই শিশু সবাই সুস্থ আছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. মো. মিজানুর রহমান বলেন, দীর্ঘ দিন পর সিজারিয়ান অপারেশন চালু করতে পেরে আমরা আনন্দিত। নরমাল ডেলিভারির সাথে জরুরী প্রসূতি সেবায় এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এই কার্যক্রম চালুর সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে ও স্টাফদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email