রবিবার ১৪ অগাস্ট ২০২২ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হাজী মোহাম্মদ দানেশ এঁর মৃত্যুবার্ষিকীতে হাবিপ্রবি প্রশাসনের কর্মসূচী পালন

হাবিপ্রবি, দিনাজপুর ॥ ঐতিহাসিক তেভাগা আন্দোলনের প্রাণপুরুষ কৃষক নেতা মরহুম হাজী মোহাম্মদ দানেশ এঁর ৩৬ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। তাঁর নামেই উত্তরবঙ্গের অন্যতম সেরা বিদ্যাপীঠ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) নামকরণ করা হয়েছিল। দিনটি উপলক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচী হাতে নিয়েছে হাবিপ্রবি প্রশাসন। এর অংশ হিসেবে সকাল ১১ টায় দিনাজপুরের গৌড়-এ-শহীদ বড় ময়দান সংলগ্ন জামে মসজিদের পাশে অবস্থিত হাজী মোহাম্মদ দানেশ এঁর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। হাবিপ্রবির মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম. কামরুজ্জামান এর পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদার এর নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করে হাবিপ্রবি প্রশাসন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. শ্রীপতি সিকদার, প্রক্টর প্রফেসর ড. মো. মামুনুর রশীদ, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. ইমরান পারভেজসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।
পরবর্তীতে বাদ যোহর হাবিপ্রবির কেন্দ্রীয় মসজিদে মরহুমের রূহের মাগফেরাত কামনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
উল্লেখ্য, হাজী মোহাম্মদ দানেশ ১৯০০ খ্রিষ্টাব্দের ২৭ শে জুন ব্রিটিশ ভারতের বাংলা প্রেসিডেন্সির দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ থানার সুলতানপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম কৃষক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন এবং সেখান থেকে তিনি ১৯৩১ সালে স্নাতকোত্তোর ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৩২ সালে তিনি আইনে ডিগ্রি লাভ করেন এবং দিনাজপুর জেলা আদালত বার-এ যোগ দেন। হাজী মোহাম্মদ দানেশ অবিভক্ত ব্রিটিশ ভারতের একজন কৃষক নেতা যিনি ১৯৪৭ খ্রিষ্টাব্দে পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পর পূর্ব পাকিস্তানের রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। তাকে তেভাগা আন্দোলনের ‘জনক’ হিসাবে আখ্যায়িত করা হয়। ১৯৮৬ সালের ২৮ জুন তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email