সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আশুরার বিলে লাল শাপলার রাজত্ব

নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : লাল-সাদা শাপলা ফুলে ছেয়ে গেছে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ জাতীয় উদ্যানের সংলগ্ন আশুরার বিল। দূর থেকে দেখে মনে হবে লাল ও সাদা চাদরে মোড়ানো একটি জলাশয়। যেন শিল্পীর নিপুণ হাতে অঙ্কিত স্থিরচিত্র। আর বিলের পানিতে প্রকৃতির এই অপরূপ সৌন্দর্য শাপলা ফুলের সমাহার উপভোগ করতে প্রতিনিয়ত আশুরার বিলে ভিড় করছেন প্রকৃতিপ্রেমীরা। 

আশুরার বিল নবাবগঞ্জ উপজেলার গোলাপগঞ্জ ইউনিয়নের ৫৮৮ দশমিক ২২ একর এলাকা জুড়ে অবস্থিত। বিলের একাংশে শাপলা বিলটির অবস্থান। যেখানে বছরের বেশির ভাগ সময় লাল-সাদা শাপলার সমাহার থাকে। যার সৌন্দর্য যে কোনো পর্যটককে মুগ্ধ করে।

আশুরার বিলে ঘুরতে আসা শিক্ষার্থী ইসমাইল হোসেন বলেন, সকালে বিলে আসলেই দেখা মিলে রং-বেরঙের শাপলার বাহারি রূপ। বিলের যত দূর চোখ যায়, তার পুরোটা জুড়েই এখন লাল-সাদা শাপলার সমাহার। কিন্তু ফুলের এ দৃশ্য টিকিয়ে রাখতে বিলটি সংস্কার করা প্রয়োজন। স্থানীয় দাউদপুর বালিকা স্কুল অ্যান্ড কলেজের সহকারী অধ্যাপক আল আলিমুল রাজি বলেন, ফুল হচ্ছে পবিত্র সৌন্দর্যের প্রতীক। ফুলকে ভালোবাসে না এমন মানুষ কম আছে। বেশির ভাগ ফুল গাছে শোভা পায়। কিন্তু পানিতে শোভা পায় শাপলা ফুল। খালবিলের পানিতে দেখা মিলে এই ফুলের। দিনদিন খালবিল কমে যাওয়ায় কমে যাচ্ছে এ ফুলের সমাহার। কিন্তু আশুরার বিলে দেখা মিলে বিপুল পরিমাণ শাপলা ফুল। ফলে ফুলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে আশুরার বিলে দূর-দূরান্ত থেকে আসেন প্রকৃতিপ্রেমিকরা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অনিমেষ সোম বলেন, নবাবগঞ্জ জাতীয় উদ্যানের সুবিশাল শালবন প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি। এই বন ঘেঁষে ঐতিহ্যবাহী আশুরার বিলের অবস্থান। বন ও বিলের সহাবস্থান আশুরার বিলকে অনন্যতা দিয়েছে ও চিত্তাকর্ষক করেছে। শাপলা ফুল এ সৌন্দর্যকে আরও বৃদ্ধি করে তুলেছে। সম্প্রতি আশুরার বিলটি খননের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। খনন হলে আরো বিপুল আকারে এ ফুলের দেখা মিলবে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email