বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

টানা তিন জয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল

আসন্ন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে ভারতে ত্রিদলীয় একটি টুর্নামেন্ট খেলতে গেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ দল ও ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ‘বি’ দলের বিপক্ষে নিজেদের খেলা টানা ৩ ম্যাচে জয়ের দেখা পেয়েছে টাইগার যুবারা। এতে টুর্নামেন্টের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে ব্যাট হাতে আলো ছড়াচ্ছেন বিশ্বকাপজয়ী অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সদস্য প্রান্তিক নওরোজ নাবিল। আগের দিন সেঞ্চুরি করার পর বৃহস্পতিবার ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ দলের বিপক্ষে অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন তিনি। সঙ্গে মাহফিজুল ইসলামের ফিফটিতে কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ৬ রানের রোমাঞ্চকর জয় পায় বাংলাদেশ। 

এদিন আগে ব্যাট করে স্কোর বোর্ডে ২৩০ রান তোলে সফরকারীরা। ২৩১ রানের লক্ষ্য টপকাতে নেমে জয়ের খুব কাছেই ছিল ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ ’ দল। শেষ ৭ বলে তাদের প্রয়োজন ছিল ৯ রান, হাতে ২ উইকেট। সেখান থেকে দুর্দান্ত বোলিংয়ে ম্যাচ বের করে আনে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বোলাররা।

ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার মাহফিজুল ও ইফতেখার হোসেন উদ্বোধনী জুটিতে দলকে এনে দেন ৫০ রান। এরপরই রিশিথ রেড্ডির বলে ক্যাচ দিয়ে ১৫ রান করে বিদায় নেন ইফতেখার। দ্বিতীয় উইকেটেও বড় জুটি গড়েন মাহফিজুল ও প্রান্তিক নওরোজ নাবিল। মাহফিজুলের ইনিংস থামে ব্যক্তিগত ৫৬ রানে। সেইসঙ্গে নিশান্ত ভাঙেন মাহফিজুল-নাবিলের ৬৮ রানের জুটি।

আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা নাবিল আজ খেলেন ৬২ রানের ইনিংস। মাহফিজুলের ব্যাট থেকে আসে ৫৬ রান। বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ২৩০ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ।

২৩১ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার হারনু সাজঘরে ফেরেন ১০ রান করে। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে অবশ্য ঘুরে দাঁড়ায় ভারত। এরপর ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টায় থাকা নিশান্ত ও অংকৃশের ৪২ রানের জুটি ভাঙেন রকিবুল হাসান। তৃতীয় উইকেট জুটিতে ভারতকে জয়ের আশা দেখান রগুবানশি ও যশ। এরই মাঝে অর্ধশতক হাঁকান রগুবানশি। ৫২ রান যোগ করার পর তাদের জুটি ভাঙেন নয়ন। ১১ রান যোগ করতেই আরো একটি উইকেট হারিয়ে বসে ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ দল।

শেষ দিকে গার্ভ সাংওয়ান ও রাজানগাড় বাওয়ার ব্যাটে জয়ের পথে ছিল স্বাগতিকরা। ৪৮তম ওভারে এসে গার্ভকে ফেরান তানজিম হাসান সাকিব। শেষ ওভারে এসে দুর্দান্ত বোলিংয়ে দলকে জয়ের আনন্দে ভাসান এই পেসার।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email