বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে ইট ভাটা মালিকের হামলায় নারীসহ ৭জন হাসাপাতালে

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥ আবাদি কৃষি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাওয়ার সময় বাধা দেওয়ায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ভাটা মালিক পক্ষের হামলায় নারীসহ ৭জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে একজনের অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আহতরা হলেন উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের নিজপাড়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে মোঃ কামাল হোসেন (৩৫)এবং একই এলাকার মৃত কলিম উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে মোঃ আব্দুল মালেক চৌধুরী (৪৮)এবং তার স্ত্রী মোছাঃ পারুল (৪২), মেয়ে মোছাঃ নিলম হাসি (১৭), মোঃ আব্দুল খালেক চৌধুরীর স্ত্রী মোছাঃ ফাতেমাতুন জান্নাত (৩৫), ছেলে মোঃ ফাহিম চৌধুরী (২২), মোঃ হায়দার আলীর স্ত্রী মোছা মনজিলা (৩৩)।

আহত মোছাঃ ফাতেমাতুন জান্নাত জানান, তাদের বাড়ীর পাশের আবাদি কৃষি জমির মাটি বৃহস্পতিবার সকালে জোড় পুর্বক কেটে পাশের মা বিক্স নামে একটি ইট ভাটায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সংবাদ পেয়ে পরিবারের লোকজন সেখানে গিয়ে বাধা দেয়। এ সময় ইট ভাটা মালিক বীরগঞ্জ পৌর শহরের আরিফ বাজার এলাকার বাসিন্দা মৃত আব্দুল কাদের মোহাম্মদের ছেলে মোঃ শমসের আলীর নেতৃত্বে প্রায় অর্ধ শতাধিক লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সকলের উপর হামলা চালায়। এতে নারী-পুরুষসহ ৭জন মারাত্মক ভাবে আহত হয়। তারা আত্মরক্ষার্থে তাৎক্ষণিক ভাবে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে। পরে স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে মোঃ কামাল হোসেনের আবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে মা বিক্স মালিক মোঃ শমসের আলী জানান, জোড় পুর্বক নয় মাটি কেটে নেওয়ার বিষয়ে জমির মালিকের সাথে লিখিত চুক্তি রয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে বীরগঞ্জ থানার এসআই মোঃ তৌহিদের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। তবে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত ভাবে অভিযোগ করেনি।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email