বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মহাকাশে হেঁটে অ্যানটেনা বদলালেন দুই নভোচারী

মহাকাশে হেঁটে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের একটি অ্যানটেনার পরিবর্তন করেছেন স্পেসএক্স ক্রু ড্রাগনের দুই নভোচারী। প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টার চেষ্টায় এই কাজ সফলভাবে সম্পন্ন করেন তারা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার দুই নভোচারী থমাস মার্শবার্ন ও কায়লা ব্যারন অ্যানটেনার পরিবর্তনে কাজ করেন।

নাসা বলেছে, খানিকটা ঝুঁকি নিয়ে এই অভিযান সম্পন্ন করা হয়েছে। কারণ, সপ্তাহখানেক আগে রাশিয়া মহাকাশে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছিল। এর ধ্বংসাবশেষ ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিল কক্ষপথ জুড়ে।

৬১ বছর বয়সী থমাস মার্শবার্নের জন্য মহাকাশে হাঁটার ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও তিনি চারবার মহাকাশে হেঁটেছেন। তিনি পেশায় চিকিৎসক। এরপর দুটি কক্ষপথ ভ্রমণে তিনি ফ্লাইট সার্জন ছিলেন। তবে ৩৪ বছর বয়সী ব্যারনের কাছে মহাকাশে হাঁটার অভিজ্ঞতা এটাই প্রথম। তিনি ছিলেন মার্কিন নৌবাহিনীর সাবমেরিন অফিসার। অভিযান শেষে ব্যারন বলেছেন, অভিজ্ঞতাটা ছিল অসাধারণ।

নাসার এই অভিযানের মধ্য দিয়ে একটি এস–ব্যান্ড রেডিও কমিউনিকেশন অ্যানটেনা পরিবর্তন করা হয়। এটির বয়স ২০ বছরের বেশি। যে অ্যানটেনা নতুন করে স্থাপন করা হয়েছে, সেটি মহাকাশ স্টেশনেই ছিল। যোগাযোগসংক্রান্ত যে জটিলতা তৈরি হয়েছিল, তা আর থাকবে না নতুন অ্যানটেনা স্থাপনের ফলে।

কাজটি করার জন্য মহাকাশ স্টেশনে গিয়েছিলেন চারজন। বাকি দুজনের একজন হলেন ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির ম্যাথিয়াস মওরার। তিনি জার্মানির নভোচারী। আরেকজন হলেন নাসার রাজা চারি।

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে ১১ নভেম্বর স্পেসএক্স ক্রু ড্রাগন উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল। কিন্তু এর চারদিন পর স্যাটেলাইটবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায় রাশিয়া। 

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email