মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

৮ মার্চ মতিঝিলে আসার আহ্বান কাদের সিদ্দিকীর

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেন, ‘৩০০ আসনের মধ্যে ১৫৪ জন সংসদ সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। আপনি ১৫৪টি আসনে নির্বাচন দিন, যদি ১০০ জন জামানত না হারায় আমি যে পর্যন্ত বেঁচে আছি আপনার গোলামি করব। আর রাজনীতি করব করব না, রাজনীতি ছেড়ে দিব।’
মতিঝিলে বুধবার দুপুরে বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম তার চলমান অবস্থান কর্মসূচির ৩৬তম দিনে সংবাদ সম্মেলন করে এ আহ্বান জানান।
‘অনির্বাচিত’ সরকারের আমন্ত্রণে মোদিকে বাংলাদেশ সফরে না আসার আহ্বান জানিয়ে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত দেশের ১৬ কোটি মানুষ আপনাকে (মোদি) আমন্ত্রণ না জানায়, ততক্ষণ আপনার আসা ঠিক হবে না। বাংলাদেশে এসে এই সরকারকে নৈতিক সমর্থন দেওয়া ঠিক হবে না।’
অবস্থানের ৪০তম দিনে প্রধানমন্ত্রীকে সংলাপের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য চিঠি দেওয়ারও ঘোষণা দেন। তবে এই চিঠি তিনি একটি দলের প্রধান হিসেবে নন, বাংলাদেশের জন্মের সঙ্গে রক্ত জড়িয়ে রয়েছে এমন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে দিবেন।

আগামী ৮ মার্চ অবস্থান কর্মসূচির ৪০তম দিনে শত্রু-মিত্র সবাইকে মতিঝিলে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘আমাদের দলীয় কর্মী, বীর মুক্তিযোদ্ধা, শত্রুপক্ষ যদি কেউ আসতে চান- সবাইকে নিয়ে আমরা আলোচনা করতে চাই। সেখান থেকেই আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিব।’

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির বিষয়ে বঙ্গবীর বলেন, ‘সরকার যদি তার পতন আরও ত্বরান্বিত করতে চায় তাহলে খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করবে।’

শেষ পর্যন্ত সরকার আলোচনা বসবেই এমন মন্তব্য করে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘আপনারা দেখবেন, সরকার শেষ পর্যন্ত আলোচনায় বসবেই। পৃথিবীকে দেখানোর মতো শান্তিও আমাদের দেশে আসবে।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর স্ত্রী নাসরিন কাদের সিদ্দিকী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম দেলোয়ার, কেন্দ্রীয় নেতা ফরিদ আহমেদ, যুব আন্দোলনের আহ্বায়ক হাবিব উন নবী সোহেল, আতিকুর রহমান সাদেক, ছাত্র আন্দোলনের আহ্বায়ত রিফাতুল ইসলাম দ্বীপ, যুগ্ম আহ্বায়ক কাওছার জামান প্রমুখ।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email